নিম্নমানের গাড়ি আমদানি বেড়েছে

0
354
car-import

রিকন্ডিশনড গাড়ি ব্যবসায়ীদের সংগঠন বারভিডা দাবি করেছে যে, নতুন নামে দেশে পরিবেশের জন্য ক্ষতিকর নিম্নমানের গাড়ি আমদানি করা হচ্ছে।

সংগঠনটি বলছে, বর্তমান শুল্ক কাঠামোতে ব্যবসায়ীরা বৈষম্যের শিকার হচ্ছেন। এতে একদিকে রাজস্ব হারাচ্ছে সরকার, অন্যদিকে ক্রেতাদেরও গুনতে হচ্ছে বাড়তি দাম । সকালে রাজধানীর বিজয়নগরে বারভিডার কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে, দেশে বাজারজাত করা সকল গাড়ির মান যাচাই-এ উদ্যোগ নেয়ার তাগিদ দেয়া হয় । গত শতাব্দীর আশির দশক থেকে বাংলাদেশে রিকন্ডিশন গাড়ি আমদানি শুরু হয়। কিছুটা কমদামে দেশের মানুষের গাড়ির স্বপ্ন পূরণে জনপ্রিয় হয়ে ওঠে এ গাড়ি। মূলত জাপান থেকেই বাংলাদেশে পূরানো গাড়ি আমদানি করা হয়। কিন্তু সম্প্রতি রিকন্ডিশন গাড়িকে পরিবেশের জন্য চরম ক্ষতিকর বলা হচ্ছে। বাজার দখলে নতুন গাড়ি আমদানিকারকরা এইধরণের প্রচারণা চালাচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন বারভিডা সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম।

আর বারভিডার সভাপতি আব্দুল হক বলেন, ‘পরীক্ষা করে দেখা হোক নতুন গাড়ি আর রিকন্ডিশন গাড়ির দূষণ কতটুকু করছে।

জাপানী গাড়িতে ক্যাটালাইটিক কনভার্টার ব্যবহার করা হয় যা ইউরো ফোর গ্রেডের । অন্যদিকে পার্শবর্তী কয়েকটি দেশ থেকে বাংলাদেশে এধরনের প্রযুক্তিবিহীন ইউরো টু গ্রেডের নতুন গাড়ি আসছে অহরহ। সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, শুল্কায়নে বর্তমানে রিকন্ডিশন গাড়িতে অবচয় ধরা হয় মূল্যের ৩৫ শতাংশ, আগে যা ৪৫ শতাংশ ছিলো, এছাড়া মূল্যের ওপর কোন রকম ট্রেড ডিসকাউন্ট ধরা হয়না । তাই নতুন ও পুরানো গাড়ির শুল্ক কাঠামোতে বড় ধরনের বৈষম্যের অভিযোগ করেন বারভিডার সভাপতি আব্দুল হক।

সূত্র: সময় টিভি

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here